লক্ষ্মীপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার হাতে তার বড় ভাই তোফায়েল আহমেদ (৫২) খুন হয়েছেন।

বুধবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার লাহারকান্দি এলাকার দমদমা পুকুরপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত হোসেন আহমেদকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত তোফায়েল একই এলাকার আজিজ উল্যা দফাদার বাড়ির মমতাজুর রহমানের ছেলে। তার স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে থাকলেও তারা ঢাকায় থাকেন। তিনি একাই বাড়িতে বসবাস করছিলেন।

আটককৃত হোসেন আহমেদ ১২ নংওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নিহতের আপন ছোট ভাই।

পুলিশ জানায়, এশার নামাজের পর তোফায়েল স্থানীয় একটি দোকান থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় ঘটনাস্থলে পৌঁছালে হোসেন তার ওপর হামলা করে। এসময় তার দুই পায়ে দা দিয়ে কুপিয়ে জখম করা হয়। জিহবা বের হওয়া অবস্থায় মৃত পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় লোকজন।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ, সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোসলেহ উদ্দিন ও শহর পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (ইনচার্জ) জহিরুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

স্থানীয়রা ধারণা করছেন, এলোপাতাড়ি কুপিয়ে শ্বাসরোধে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতের বোন হোসনেয়ারা বেগম ও ভাতিজি ফারজু আক্তার জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রায়ই তোফায়েল ও হোসেনের সঙ্গে ঝগড়া হতো। বুধবার সকালে তোফায়েলের সঙ্গে হোসেনের স্ত্রী জেসমিন বেগমের বাক বিতন্ডা হয়। সন্ধ্যায় হোসেন বাড়িতে এলে জেসমিন তার কাছে বিচার দেয়। স্ত্রীর কথায় প্ররোচিত হয়েই বড় ভাইকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানান তারা।

লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল এসেছি। স্থানীয় এলাকাবাসী ও স্বজনদের সঙ্গে কথা বলেছি। অভিযুক্ত হোসেনকে আটক করা হয়েছে। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।