সম্প্রতি ৪৫তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। এতে বিভিন্ন ক্যাডারে ২৩০৯ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। এছাড়া নন-ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত হবেন ১ হাজার ২২ জন।

৩০ নভেম্বর প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে আগামী বছর মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ১০ ডিসেম্বর থেকে ৪৫তম বিসিএসের আবেদন গ্রহণ শুরু হব। অনলাইনে এই আবেদন চলবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় ২০০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্ন থাকবে এবং প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য ১ নম্বর ও ভুল উত্তর দিলে প্রতিটি ভুলের জন্য মোট প্রাপ্ত নম্বর থেকে ০.৫০ নম্বর করে কাটা যাবে।

পরীক্ষাসমূহের সুনির্দিষ্ট তারিখ, সময় ও নির্দেশনা যথা সময়ে কমিশনের ওয়েবসাইট এবং সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করা হবে বলেও জানায় পিএসসি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিএসসির এক কর্মকর্তা জানান, প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে ১০ মার্চ (শুক্রবার) ৪৫তম বিসিএসের প্রিলি হতে পারে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ৪৫তম বিসিএসে সবচেয়ে বেশি নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে স্বাস্থ্য ক্যাডারে। এতে নিয়োগ পাবেন ৫৩৯ জন। এর মধ্যে সহকারী সার্জন পদে ৪৫০ জন ও ডেন্টাল সার্জন পদে ৮৯ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এছাড়া শিক্ষা ক্যাডারে ৪৩৭ জন, প্রশাসনে ২৭৪ জন, পুলিশে ৮০ জন, কাস্টমসে ৫৪ জন, আনসারে ২৫ জন, কর ক্যাডারে ৩০ জন এবং পররাষ্ট্র, বন, রেল, কৃষি, মৎস্যসহ অন্যান্য ক্যাডারে ৮৭০ জনকে নিয়োগ দেবে সরকার।