কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলায় ৩ ছেলেসহ নারীর যাবজ্জীবন

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে কৃষক দুলাল মিয়া হত্যা মামলায় মা ও তিন ছেলেসহ ছয়জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেকের ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুরে কিশোরগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. সায়েদুর রহমান খান এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার তিন আসামিকে খালাস দেন তিনি।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার উত্তর বুনা গ্রামের মৃত গোলাপ মিয়ার স্ত্রী মজ্জু বানু (৫৫), তার তিন ছেলে বাচ্চু মিয়া (৩৮), ফেরদৌস মিয়া (২৮) ও সাফেক মিয়া (২৭) এবং একই এলাকার আব্দুল মান্নান খানের ছেলে জুবায়ের (২৮) এবং আব্দুল মান্নাফ খানের ছেলে ফারুক মিয়া। এদের মধ্যে বাচ্চু মিয়া পলাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে ২০১৭ সালের ২৬ জুন দুপুরে কটিয়াদী উপজেলার করগাঁও ইউনিয়নের বুনা গ্রামের কৃষক দুলাল মিয়ার ওপর অতর্কিত হামলা চালানো হয়। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হন তিনি। তাকে উদ্ধার বাজিতপুরের জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় একই দিন নিহতের স্ত্রী নাজমা আক্তার বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামি করে কটিয়াদী মডেল থানায় একটি মামলা করেন। পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে একই বছরের ২৪ ডিসেম্বর ৯ জনের নামে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।


আরও পড়ুন