muktijoddhar kantho logo l o a d i n g

আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন জেলেনস্কি, করবেন বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক

যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন জেলেনস্কি, করবেন বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। আগামী সপ্তাহে উত্তর আমেরিকার এই দেশটিতে তিনি যেতে পারেন এবং সে সময়ই মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি।

শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি আগামী সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে হোয়াইট হাউসে সাক্ষাৎ করবেন বলে মার্কিন মিডিয়া রিপোর্ট বলা হয়েছে। পরে উভয় নেতার সেই সপ্তাহে নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে বলে বিবিসির মার্কিন অংশীদার সিবিএস নিউজ জানিয়েছে।

অন্যান্য মার্কিন মিডিয়া আউটলেটগুলো জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানের সময় দেশটির গণতন্ত্রের প্রতীক ক্যাপিটল হিলেও যাবেন ভলোদিমির জেলেনস্কি। সেখানে রাশিয়ার আক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য আরও মার্কিন সহায়তা পাওয়ার চেষ্টা চালাবেন তিনি।

টানা দেড় বছরের বেশি সময় ধরে ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে রাশিয়া। রুশ এই আগ্রাসনের শুরু থেকেই পূর্ব ইউরোপের এই দেশটিকে অস্ত্রসহ সামরিক সহায়তা দিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলো।

মূলত রুশ আগ্রাসন মোকাবিলায় ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীকে সহায়তার জন্য বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র ও তহবিলসহ সামরিক সরঞ্জাম প্রদান করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন গত সপ্তাহে ইউক্রেন সফর করেন এবং ১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের নতুন সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা করেন।

নতুন এই সহায়তা প্যাকেজের মধ্যে ক্ষয়প্রাপ্ত ইউরেনিয়াম ট্যাংক শেলও রয়েছে। যদিও এই ধরনের অস্ত্র ইউক্রেনে পাঠানো হবে না বলে আগে ঘোষণা দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে গত মাসে ইউক্রেনে আরও ২৪ বিলিয়ন ডলার পাঠানোর জন্য কংগ্রেসের প্রতি আহ্বান জানান বাইডেন।

বিবিসি বলছে, নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিতব্য সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ভলোদিমির জেলেনস্কির বক্তৃতা দেওয়ার কথা রয়েছে। এই অধিবেশন উপলক্ষ্যে যুক্তরাষ্ট্রে সফররত অন্যান্য বিশ্ব নেতাদের সাথেও ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট বৈঠক করার পরিকল্পনা করছেন বলে জানা গেছে।

এছাড়া ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু জাতিসংঘের অধিবেশনের ফাঁকে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসার পরিকল্পনা করছেন বলে বৃহস্পতিবার নিশ্চিত করেছেন তিনি।

কিয়েভ থেকে বিবিসির পল অ্যাডামস জানিয়েছেন, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে কিছু গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে যে, রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে ইউক্রেনের পাল্টা আক্রমণের ধীর গতিতে ওয়াশিংটন হতাশ। আবার ইউক্রেনের জেনারেলরা যেভাবে যুদ্ধ পরিচালনা করছেন কিছু মার্কিন নেতা সেটির সমালোচনা করেছেন বলেও জানা গেছে।

যার ফলে দুই দেশের মধ্যে কিছুটা মনোমালিন্য দেখা দিয়েছে। এছাড়া ইউক্রেনের অব্যাহত সহায়তার বিরোধিতা করে মার্কিন রিপাবলিকানদের সংখ্যাও ক্রমবর্ধমান এবং এই পরিস্থিতিতেই এই সফরটি অনুষ্ঠিত হতে চলেছে।

উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং ভলোদিমির জেলেনস্কি শেষবার লিথুয়ানিয়ায় ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলনের সময় সরাসরি আলোচনা করেছিলেন। এর আগে তারা মে মাসে জাপানে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে বৈঠকে বসেছিলেন।

এছাড়া ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে জেলেনস্কির যুক্তরাষ্ট্রে এটিই দ্বিতীয় সফর হতে চলেছে। যুক্তরাষ্ট্রে তার প্রথম সফর নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে ব্যাপক গোপনীয়তার মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। মূলত যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে ইউক্রেনের বাইরে সেটিই ছিল জেলেনস্কির প্রথম কোনও সফর।